উইন্ডোজ ১১ ইনস্টল কিভাবে দিতে হয়। How to Install Windows 11

গত ২৪ জুন ২০২১ তারিখ উইন্ডোজ ১১ এর ঘোষণা দেয় মাইক্রোসফট। বর্তমানে আপনার কম্পিউটার বা পিসি, কিছু রিকোয়ারমেন্ট পূরণ করলে, উইন্ডোজ 11 সেটআপ করতে পারবেন। আপনার কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে।

উইন্ডোজ ১১ ইনস্টল কিভাবে দিতে হয়।How to Install Windows 11

উইন্ডোজ 11 ইনস্টলেশন রিকোয়ারমেন্ট

মাইক্রোসফট একটা সফটওয়্যার তৈরি করেছে, যার মাধ্যমে আপনি চেক করতে পারেন ।আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে, উইন্ডোজ 11 সেটআপ রিকোয়ারমেন্ট পুরান  করে কি-না। পিসি হেলপ সফটওয়ারটি টিক চিহ্ন ওঠে তার মানে, উইন্ডোজ 11 আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে সেটআপ করতে পারবেন।

উইন্ডোজ 11 যে কোন কম্পিউটারে সেটাপ

উইন্ডোজ ১১ ইন্সটল এর ক্ষেত্রে রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট প্রয়োজনীয় সিস্টেম রিকোয়ারমেন্ট। তবে এসব না থাকলেও কম্পিউটারে উইন্ডোজ ১১ ইন্সটল করার পদ্ধতি স্বয়ং মাইক্রোসট সরবরাহ করছে। অর্থাৎ প্রায় যেকোনো কম্পিউটারে ইন্সটল করা যাবে উইন্ডোজ ১১।

উইন্ডোজ 11 সেটআপ করতে কি প্রয়োজন

কম্পিউটার বা ল্যাপটপে, উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য মিনিমাম পিসি রিকোয়ারমেন্টস যা পূরণ করে ,কম্পিউটার বা ল্যাপটপে উইন্ডোজ সেটআপ করতে পারেন।  প্রথমত windows.iso ফাইল ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে। তারপর আপনার কম্পিউটারে, একটা সফটওয়্যার ইন্সটল করে পেনড্রাইভ বুটেবল করতে হবে। পেনড্রাইভ বুটেবল হলে কম্পিউটার রিস্টার্ট করে বুট মেনু ওপেন করে সেটআপ করুন।দয়া করে নিচের স্টেপগুলো পূরণ করুন।

01(স্টেপ) ইন্টারনেট থেকে উইন্ডোজ ফাইল ডাউনলোড করুন।
02(স্টেপ) এবার একটি পেনড্রাইভ সংগ্রহ করুন কমপক্ষে 8 জিবি।
03 (স্টেপ) পেনড্রাইভকে বুটেবল করুন একটি সফটওয়্যারের সাহায্যে।
04 (স্টেপ) কম্পিউটার রিস্টার্ট করে বুট মেনু থেকে উইন্ডোজ সেটআপ করুন।

কিভাবে উইন্ডোজ ১১ ডাউনলোড করবেন।

আপনার পিসির “উইন্ডোজ আপডেট” সেকশনে যদি উইন্ডোজ ১১ এর আপডেট ইতিমধ্যে দেখতে পান, তাহলে উইন্ডোজ ১১ ডাউনলোড করার প্রয়োজন পড়বেনা।যদি আপডেট অপশনে দেখতে না পান,তাহলে আপনাকে মেনুয়েল উইন্ডোজ ইলেভেন ডাউনলোড করতে হবে। উইন্ডোজ 11 ডাউনলোড করার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন। অথবা গুগল থেকে ডাউনলোড লিখে সার্চ করুন।

কিভাবে পেনড্রাইভ বুটেবল করতে হয়।

ইন্টারনেট থেকে ছোট্ট একটি সফটওয়্যার যার নাম (Rufus)সফটওয়ারটি ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে, আপনার কম্পিউটার এ ডাবল ক্লিক করে, ওপেন করুন। এবার উইন্ডোজ আইএসও ফাইল, ড্রাগণ ড্রপ করে, সফটওয়্যার এর উপর ছেড়ে দিন। পেনড্রাইভ কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করুন ।এবার স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে, পেনড্রাইভ বুটেবল করে নিন।

কিভাবে উইন্ডোজ ইন্সটল করা শুরু করবেন

উইন্ডোজ ফাইল ডাউনলোড করে,পেনড্রাইভ বুটেবল করে নিন। পেনড্রাইভ বুটেবল হয়ে গেলে, কানেক্ট থাকা অবস্থায়, কম্পিউটারটি রিস্টার্ট করুন। এবার কম্পিউটারের লোগো স্কিনে শো করার সাথে সাথে,কিবোর্ড এর বুট মেনু শর্টকাট বাটনে ক্লিক করুন। বুট মেনু ওপেন করুন।বুট মেনু থেকে পেনড্রাইভ সিলেক্ট করে এন্টার বাটনে ক্লিক করুন।


কিভাবে উইন্ডোজ ইন্সটল করতে হয়।

কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে,নিজেই ঘরে বসে, উইন্ডোজ সেটআপ করতে পারেন। তার জন্য কি প্রয়োজন হবে। বিস্তারিত নিয়েই আমরা আলোচনা করেছি । প্র্যাকটিক্যালি আপনাকে স্ক্রিনশট এর ভিডিওর মাধ্যমে, বোঝানোর চেষ্টা করেছি। কিভাবে আপনি নিজেই, নিজের কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে, উইন্ডোজ সেটআপ করবেন । সবকিছুই ডিটেইলস আলোচনা করা হয়েছে। দয়া করে স্ক্রিনশট ফলো করে, আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজ সেটআপ করুন।

কম্পিউটার রিস্টার্ট করে, মাদারবোর্ডের লোগো স্কিনে শো করার সাথে সাথে, কিবোর্ড থেকে বুট মেনু শর্টকাটে ক্লিক করুন। আমরা অনেকে, কিবোর্ড এর বুট মেনু শর্টকাট কী, বাটনে চাপ দিতে হবে, অনেকে জানিনা। সেক্ষেত্রে গুগলের সাহায্য নিতে পারেন। গুগলে গিয়ে সার্চ করতে পারেন, বুট মেনু শর্টকাট কী, অর্থাৎ আপনি যে মাদারবোর্ড ব্যবহার করেন, ওই মাদার বোর্ডের নাম লিখে, বুট মেনু শর্টকাট কী, লিখে এন্টার করতে পারেন। শর্টকাট বাটন দেখতে পাবেন।

বুট মেনু ওপেন করার পর এখান থেকে ইউএসবি পেন ড্রাইভ সিলেক্ট করুন। ইন্টার বাটনে ক্লিক করতে থাকুন।


এবার উইন্ডোজ সেট আপ লোড নিচ্ছে।

এবার উইন্ডোজ সেট আপ লোড নিচ্ছে

এবার উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য ভাষা সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য ভাষা সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

ইনস্টল নাও এই বাটনে ক্লিক করুন।

ইনস্টল নাও এই বাটনে ক্লিক করুন

উইন্ডোজ সেটআপ ইস স্টার্টিং।

উইন্ডোজ সেটআপ ইস স্টার্টিং


উইন্ডোজ অ্যাক্টিভেশন লাইসেন্স । লাইসেন্স না থাকলে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

উইন্ডোজ অ্যাক্টিভেশন লাইসেন্স । লাইসেন্স না থাকলে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম সিলেক্ট করুন।

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম সিলেক্ট করুন

একসেপ্ট দা লাইসেন্স  এখানে ক্লিক করুন।

একসেপ্ট দা লাইসেন্স  এখানে ক্লিক করুন।

এবার নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

কাস্টম ইন্সটল উইন্ডোজ অ্যাডভান্স এখানে ক্লিক করুন।

কাস্টম ইন্সটল উইন্ডোজ অ্যাডভান্স এখানে ক্লিক করুন


এবার এখানে একটু সতর্কতার সাথে, পুরাতন উইন্ডোজ ড্রাইভ টি সিলেক্ট করে, ডিলিট করে দিন। ডিলিট হওয়া ড্রাইভ সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন। একটু সতর্ক হবেন, এখানে পুরাতন উইন্ডোজ করা ড্রাইভ সিলেক্ট না করে, যদি অন্য কোন ড্রাইভ ডিলিট করে দেন। তাহলে আপনার ডাটা ডিলিট হয়ে যাবে, তাই যে ড্রাইভে উইন্ডোজ সেটআপ করা ছিল, শুধুমাত্র ওই ড্রাইভ টি সিলেক্ট করে, ডিলেট বা ফরমেট বাটনে ক্লিক করে, নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন। কিভাবে কম্পিউটারে হার্ড ড্রাইভ পার্টিশন করতে হয়। উইন্ডোজ সেটআপ সমস্যা হলে, কিভাবে সমাধান করবেন।


ড্রাইভ টি সিলেক্ট করে ডিলিট বাটনে ক্লিক করুন।

ড্রাইভ টি সিলেক্ট করে ডিলিট বাটনে ক্লিক করুন

এবার পুরাতন ডিলিট হওয়া ড্রাইভ সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার পুরাতন ডিলিট হওয়া ড্রাইভ সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

উইন্ডোজ ইন্সটল হওয়ার জন্য এখানে বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করুন। স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেস্টার্ট নিবে।

উইন্ডোজ ইন্সটল হওয়ার জন্য এখানে বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করুন স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেস্টার্ট নিবে

উইন্ডোজ ইনস্টলেশন কমপ্লিট হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিস্টার্ট হবে।

উইন্ডোজ ইনস্টলেশন কমপ্লিট হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিস্টার্ট হবে

কম্পিউটার রিস্টার্ট করার পরে আবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওপেন হবে।দয়া করে পরবর্তী ধাপের জন্য একটু অপেক্ষা করুন।

কম্পিউটার রিস্টার্ট করার পরে আবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওপেন হবে

দয়া করে পরবর্তী ধাপের জন্য একটু অপেক্ষা কনুন।

দয়া করে পরবর্তী ধাপের জন্য একটু অপেক্ষা কর

এবার এখানে কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম ভাষা সিলেক্ট করুন।

এবার এখানে কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম ভাষা সিলেক্ট করুন

এবার কিবোর্ড এর ভাষা সিলেক্ট করুন।

এবার কিবোর্ড এর ভাষা সিলেক্ট করুন

সেকেন্ডারি কিবোর্ড প্রয়োজন না হলে । স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন।

সেকেন্ডারি কিবোর্ড প্রয়োজন না হলে স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন

উইন্ডোজ আপডেট চেক হচ্ছে অপেক্ষা করুন।

উইন্ডোজ আপডেট চেক হচ্ছে অপেক্ষা করুন

এবার আপনার ডিভাইসের একটা নাম দিন।তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার আপনার ডিভাইসের একটা নাম দিন

এবার এখানে অপেক্ষা করুন।

এবার এখানে অপেক্ষা করুন

এবার এখানে পারসনাল ইউজ সিলেক্ট করুন তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার এখানে পারসনাল ইউজ সিলেক্ট করুন তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

এবার এখানে মাইক্রোসফট একাউন্ট সাইন ইন করুন।

এবার এখানে মাইক্রোসফট একাউন্ট সাইন ইন করুন

এবার মাইক্রোসফট একাউন্ট লগইন করুন যদি একাউন্ট না থাকে তাহলে ক্রিয়েট অন এখানে ক্লিক করুন।
ইমেইল দিয়ে মাইক্রোসফট একাউন্ট খুলতে পারেন অথবা ফোন নম্বর দিয়ে এখানে ফোন নাম্বার সিলেক্ট করুন


ইমেইল দিয়ে মাইক্রোসফট একাউন্ট খুলতে পারেন অথবা ফোন নম্বর দিয়ে এখানে ফোন নাম্বার সিলেক্ট করুন।

এবার মাইক্রোসফট একাউন্ট লগইন করুন যদি একাউন্ট না থাকে তাহলে ক্রিয়েট অন এখানে ক্লিক করুন

এবার আপনার ফোন নম্বরটি টাইপ করুন। তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

ইমেইল দিয়ে মাইক্রোসফট একাউন্ট খুলতে পারেন অথবা ফোন নম্বর দিয়ে এখানে ফোন নাম্বার সিলেক্ট করুন

এবার নতুন একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করুন। এরপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার নতুন একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করুন

এবার আপনার ফার্স্ট নেম লাস্ট নেম টাইপ করুন। তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার আপনার ফার্স্ট নেম লাস্ট নেম টাইপ করুন

এবার আপনার জন্ম তারিখ কি টাইপ করুন।

এবার আপনার জন্ম তারিখ কি টাইপ করুন

এবার আপনার মোবাইল ফোনে একটা কোড পাঠানো হয়েছে কোডটা এখানে টাইপ করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার আপনার মোবাইল ফোনে একটা কোড পাঠানো হয়েছে কোডটা এখানে টাইপ করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

এবার অটোমেটিক অ্যাড হবে যদি আর না হয় তাহলে ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন ইন করে নিন।

এবার অটোমেটিক অ্যাড হবে যদি আর না হয় তাহলে ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন ইন করে নিন

আপনার পুরাতন একাউন্টে যদি কোন সেটিং থাকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিয়েস্টাট অপশনটি আসবে, না হলে নিউ ডিভাইস এ ক্লিক করে, নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।


এবার এখানে একটা পিন বা পাসওয়ার্ড তৈরি করুন কম্পিউটার ওপেন করার সময় পাসওয়ার্ড  আরটি প্রয়োজন হবে।

এবার এখানে একটা পিন বা পাসওয়ার্ড তৈরি করুন কম্পিউটার ওপেন করার সময় পাসওয়ার্ড  আরটি প্রয়োজন হবে

এখানে একটা পিন তৈরি করুন।

এখানে একটা পিন তৈরি করুন

এবার এখানে অপেক্ষা করুন।

এবার এখানে অপেক্ষা করুন

এবার এখানে ডিফল্ট রেখে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার এখানে ডিফল্ট রেখে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন

এবার এখানে স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন।

এবার এখানে স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন

মোবাইল কানেক্ট করতে চাইলে কানেক্ট করতে পারেন অথবা স্কিপ করতে পারেন।

মোবাইল কানেক্ট করতে চাইলে কানেক্ট করতে পারেন অথবা স্কিপ করতে পারেন

microsoft-office ব্যবহার করতে না চাইলে ডিজে লাইনে ক্লিক করুন।

microsoft-office ব্যবহার করতে না চাইলে ডিজে লাইনে ক্লিক করুন


আপনার পিসিতে গেমিং না থাকলে স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন।

আপনার পিসিতে গেমিং না থাকলে স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন

এবার এখানে অপেক্ষা করুন চেক করছে উইন্ডোজ আপডেট আসছে কিনা।

এবার এখানে অপেক্ষা করুন চেক করছে উইন্ডোজ আপডেট আসছে কিনা

উইন্ডোজ সেটআপ হচ্ছে।রেডি হচ্ছে অপেক্ষা করুন। 

উইন্ডোজ সেটআপ হচ্ছে।রেডি হচ্ছে অপেক্ষা করুন।

উইন্ডোজ সেটআপ হচ্ছে।রেডি হচ্ছে অপেক্ষা করুন। 

উইন্ডোজ সেটআপ হচ্ছে।রেডি হচ্ছে অপেক্ষা করুন।

উইন্ডোজ সেটআপ হচ্ছে।রেডি হচ্ছে অপেক্ষা করুন। 

উইন্ডোজ সেটআপ হয়ে কম্পিউটার ওপেন হয়ে গেল

উইন্ডোজ ১১ এর নতুন ফিচারসমুহ

নতুন স্টার্ট মেন্যুর সাথে আরো বেশ কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে উইন্ডোজ ১১ তে। উইন্ডোজ ১১ তে যুক্ত হয়েছে আকর্ষণীয় উইজেট। এর পাশাপাশি উন্নত গেমিং এক্সপেরিয়েন্স পাওয়া যাবে উইন্ডোজ ১১ থেকে।

উইন্ডোজ ১১ এর ডিফল্ট টাস্কবার ও স্টার্ট মেন্যু এখন স্ক্রিনের মাঝখানে রয়েছে, এ খবর সবার জানা। এছাড়াও নতুন স্প্লিট উইন্ডো ভিউ এসেছে উইন্ডোজ ১১ তে। আলাদা ব্যবহারের জন্য আলাদা ডেস্কটপ সেটাপের সুযোগ রয়েছে। উইন্ডোজ ১১ এর সকল ফিচার সম্পর্কে ডেডিকেটেড পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।


মূল্যবান মতামতের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Post a Comment

মূল্যবান মতামতের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post