কিভাবে ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন এড করবেন | How to Add Custom Domain in Blogger |

আপনি খুব সহজেই,ব্লগার কাস্টম ডোমেইন এড করতে পারেন । কাস্টম ডোমেইন এড করে । আপনি এখান থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। কিভাবে ব্লগার ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়। কিভাবে ব্লগার ওয়েবসাইটে পোস্ট করতে হয়। বিস্তারিত নিয়েই ,আমাদের এই পোস্টটিতে আলোচনা করা হবে।

কিভাবে ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন এড করবেন | How to Add Custom Domain in Blogger |


ব্লগিং কি । কিভাবে অর্থ উপার্জন করা যায়।

ব্লক হচ্ছে অনলাইন ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ারিং মাধ্যম। উদাহরণস্বরূপ। যেমন আপনি একজন সাংবাদিক,এলাকার বিষয় নিয়ে. বিভিন্ন লেখালেখি করেন । লেখালেখি গুলো মানুষের সাথে শেয়ার করতে চান । এবং শেয়ার করছেন । তাহলে আপনি ব্লগিং করছেন। বা ব্লগার। সেটি হতে পারে অনলাইন তথ্যভিত্তিক যে কোন আর্টিকেল এটাই মূলত ব্লগিং বা ব্লগার বলা হয় । 

কিভাবে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করবেন । 

ব্লগিং করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন ঘরে বসেই। আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপরে ব্লগ পোস্ট করে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করিয়ে সহজে ইনকাম করতে পারেন। অথবা এফিলিয়েট মার্কেটিং অর্থাৎ বিভিন্ন প্রোডাক্ট এর প্রমোশন করিয়ে। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন। এছাড়াও ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

কিভাবে ব্লগার ওয়েবসাইট তৈরি করবেন।

আপনি চাইলে বিনামূল্যে একটা ব্লগার ওয়েবসাইট তৈরি করে অর্থ উপার্জন করে নিতে পারেন। অথবা আপনার পার্সোনাল তথ্য শেয়ার করার জন্য । একটা ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারেন । অথবা লোকাল নিউজ শেয়ার করার জন্য ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারেন। ওয়েবসাইট বানানোর সহজ উপায় হচ্ছে ব্লগার। কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন।

কিভাবে ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন এড করবেন ।

কাস্টম ডোমেইন অ্যাড করার জন্য। প্রথমে আপনাকে একটা ডোমেইন কিনে নিতে হবে । যে কোন একটা ডোমেইন হোস্টিং প্রোভাইডার কোম্পানি থেকে। কিনে নিবেন। তারপর কাস্টম ডোমেইনটি, আপনার ব্লগের এড করে নিবেন। নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন । খুব সহজেই কাস্টম ডোমেইন অ্যাড করতে পারবেন। 
01 প্রথমে ব্লগারে লগইন করুন। লগইন করার পর সেটিং অপশনে ক্লিক করুন।

02 এবার এখানে কাস্টম ডোমেইন এ ক্লিক করুন।

03 এবার ডাবলুডাবলু দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটটি লিখুন।

04 এবার ডোমেইনটি টাইপ করে সেভ বাটনে ক্লিক করুন।

05 এবার আপনার ডোমেইন ডিএনএ রেকর্ড করতে হবে। 

06 এবার যেখান থেকে ডোমেইন কিনেছেন সে ওয়েবসাইটে লগইন করুন। মাই ডমিনিক ক্লিক করুন।

07 এবার আপনার ডোমেইন সিলেক্ট করুন এবং অ্যাক্টিভ বাটনে ক্লিক করুন।

08 এবার এখান থেকে ডিএনএস ম্যানেজমেন্ট এখানে ক্লিক করুন।

09 এবার এখানে ডিএনএ রেকর্ড করতে হবে। উপরে ড্রপডাউন এ ক্লিক করুন এবার এখানে সিনেম এখানে ক্লিক করুন। 



10 এবার এখানে www অতঃপর ghs.google.com ট্যাপ করুন।

11 তারপর এখানে সেভ বাটনে ক্লিক করুন।

12 এবার ব্লগারে ফিরে যান। এখানে সিক্রেট কি দুটি কপি করুন ।দয়াকরে স্ক্রীনশট গুলো দেখুন।

13 এবার ডিএনএ রেকর্ড ম্যানেজমেনট এ যান। সিক্রেট কি কপি পেস্ট করুন। 

14 কপি পেস্ট করে সেভ বাটনে ক্লিক করুন। 

15 এবার ব্লগারে ফিরে যান। সাপোর্ট পেইজ লিঙ্ক এ ক্লিক করুন।
16 এবারে স্ক্রল ডাউন করে নিচে যান। এখানে চারটা আইপি অ্যাড্রেস রয়েছে । আইপি এড্রেস গুলো কপি করুন এক একটা করে। 

17 এবার ডি এন এস ম্যানেজমেন্ট এ যান। এ রেকর্ড সিলেক্ট করুন। এবার আইপি এড্রেস টা এখানে পেস্ট করুন। হোস্ট এর জায়গায় আপনার ওয়েবসাইটটি টাইপ করুন। 

18 এবার সেভ বাটনে ক্লিক করুন। সেভ করে ব্লগার এ ফিরে যান। 

19 এবার ব্লগার এসে কিছু সময় অপেক্ষা করুন তারপর সেভ বাটনে ক্লিক করুন। ডিএনএস রেকর্ড হয়ে গেলে সেভ হয়ে যাবে।

20 ওয়েবসাইটটি সেফ হওয়ার পর রি-ডাইরেক্ট অপশন টি অন করুন।

21 এবার এইচটিটিপিএস অপশনটি অন করে দিন।

হয়ে গেল সফলভাবে কাস্টম ডোমেইন এড করা ব্লগার এ। আপনি যদি কোন সমস্যার সম্মুখীন হন তাহলে নিচে অনুসন্ধান করতে পারেন। অথবা কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিতে পারেন আমি আপনাকে হেল্প করার চেষ্টা করব। নিচে দেখুন ব্লগার রিলেটেড ক্যাটাগরিতে জান পোস্টগুলো খুঁজে বার করে আপনার সমস্যাটি সমাধান করুন। 

ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন এড হতে কত সময় নেয়।

অনেক সময় আমরা থার্ড পার্টি ডোমেইন হোস্টিং রিসেলার কোম্পানি থেকে, ডোমেইন নিয়ে থাকি,সেক্ষেত্রে 24 ঘন্টা অথবা 48 ঘন্টা সময় নিয়ে থাকে । আপনি যদি ভাল একটি , ডিএনএস ম্যানেজমেন্ট টুল ব্যবহার করে, ডিএনএ রেকর্ড করতে পারেন। তাহলে খুব দূরত্ব ব্লগার ওয়েবসাইটটি এড হয়ে যাবে অর্থাৎ লাইভ হবে । 

ব্লগারে কাস্টম ডোমেইন এড করা যায় না।

থার্ড পার্টি রিসেলার কোম্পানি থেকে ডমিন নেওয়ার ফলে । ব্লগার এড করা যায় না। সে ক্ষেত্রে থার্ড পার্টি রিসেলার কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করবেন। তারা ডিএনএ ম্যানেজমেন্ট টুল চেঞ্জ করে। ব্লগার এড করে দিবে। অথবা নেম সার্ভার চেঞ্জ করে। ডিএনএ রেকর্ড করতে বলবে। অথবা ফ্রী একটা টুল ব্যবহার করে ডিএনএস অ্যাড করে নিতে পারেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে সে ক্ষেত্রে ক্লাউড ফায়ার ব্যবহার করতে পারেন। ক্লাউড ফায়ার দ্রুত ডিএনএস রেকর্ড করে এড করে দিতে পারে।

কিভাবে ওয়েবসাইটে পোস্ট করবেন ।

ব্লগার ওয়েবসাইটে পোস্ট করার জন্য প্রথমে ব্লগার এ লগইন করুন । তারপর সাইড বার থেকে। নিউ পোস্টে ক্লিক করুন । অতঃপর একটা সুন্দর টাইটেল দিন। তারপর ডিসক্রিপশন লিখুন । চাইলে এইচটিএমএল এডিটর ব্যবহার করতে পারেন। টেক্সট কালার করতে পারেন । টেক্সট সুন্দরভাবে সাজাতে পারেন। টেক্সট  লিংক এড করতে পারেন । বিস্তারিত জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন। 

Post a Comment

মূল্যবান মতামতের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Previous Post Next Post