Windows Setup From USB কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে কিভাবে উইন্ডোজ সেটআপ করবেন।

আমরা অনেকেই নিজেদের কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে উইন্ডোজ সেটআপ করতে পারিনা । আজ আমরা, দেখবো কিভাবে কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে উইন্ডোজ সেটআপ করা যায় । কি প্রসেসিং করে,উইন্ডোজ সেটআপ করা হয়। বিস্তারিত সবকিছু ভিডিও এবং স্ক্রিনশট এর মাধ্যমে তুলে ধরা হলো ।

Windows Setup From USB কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে কিভাবে উইন্ডোজ সেটআপ করবেন।


ডিভিডি কিংবা পেনড্রাইভের মাধ্যমে কিভাবে উইন্ডোজ সেটআপ করা হয়। 

আপনি কিসের মাধ্যমে আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে উইন্ডোজ সেটআপ করতে চান। ডিভিডির মাধ্যমে, কম্পিউটারে উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য । বাজার থেকে একটা ডিভিডি ডিস্ক কিনে আনতে হবে । আপনার কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপে. অবশ্যই ডিভিডি প্লেয়ার থাকতে হবে এবং সেটি যেন সক্রিয় থাকে।

কিভাবে পেনড্রাইভের মাধ্যমে উইন্ডোজ সেটআপ করা যায়।

এখন বর্তমান সময়ে,আমরা পেনড্রাইভের মাধ্যমে,ল্যাপটপ কিংবা কম্পিউটারে, উইন্ডোজ সেটআপ করে থাকি। সেক্ষেত্রে আপনি খুব সহজেই, আপনার কম্পিউটার বা ল্যাপটপে, পেনড্রাইভের মাধ্যমে উইন্ডোজ সেটাপ করতে পারেন । স্টেপ গুলো পূরণ করে, ইজিলি সেটআপ করা সম্ভব । 

পেনড্রাইভ বা ইউএসবি কিভাবে বুট করতে হয় ।

কম্পিউটারে উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য, আমাদেরকে প্রথমে,উইন্ডোজের আইএসও ফাইল, ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে। ইউএসবি বা পেনড্রাইভ বুট করার জন্য, ছোট্ট একটি সফটওয়্যার ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করতে হবে। সফটওয়্যার এর এই লিঙ্ক থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।  কিভাবে বুট করতে হয় আপনি যদি না বোঝেন তাহলে এই লিংক থেকে জেনে নিতে পারেন ।

কিভাবে উইন্ডোজ সেটআপ করা স্টার্ট করব।

উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য, প্রথমে ডিভিডি অথবা পেন ড্রাইভ, কম্পিউটার বা ল্যাপটপে কানেক্ট করতে হবে । কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপ এ থাকা রিস্টার্ট বাটনে ক্লিক করে, কম্পিউটারটি রিস্টার্ট করতে হবে । তারপর কম্পিউটারে কিবোর্ড থেকে, কমান্ড বাটন ক্লিক করে । বুট মেনু ওপেন করতে হবে ।

কিভাবে বুট মেনু ওপেন করতে হয় উইন্ডোজ সেটআপ করার জন্য।

বুট মেনু ওপেন করার জন্য কি বোর্ড থেকে শর্টকাট এ ক্লিক করে বুট মেনু ওপেন করতে হয় । একটা মাদারবোর্ডে এক এক রকমের,কমান্ড বাটন থাকে, বাটনে ক্লিক করে ওপেন করতে হয় । আপনি যদি না জানেন, কোন বাটনে ক্লিক করে, বুট মেনু ওপেন করতে হয়। তাহলে গুগলে সার্চ করে ,জেনে নিবেন। গুগলে কিভাবে সার্চ করবেন বুট মেনু শর্টকাট বাটন জানার জন্য। প্রথমে আপনার ব্যবহারকৃত. কম্পিউটার কিংবা ল্যাপটপের মডেল নাম্বারটি লিখে. সার্চ করবেন বুট মেনু শর্টকাট। দেখবেন গুগোল রেজাল্ট দেখাবে। রেজাল্ট জেনে শর্টকাটে ক্লিক করে। বুট মেনু ওপেন করে নিবেন ।

কিভাবে বুট মেনু থেকে উইন্ডোজ সেটাপ করা শুরু করবো।

01 কিবোর্ডে ব্যবহার করে পেনড্রাইভ অথবা ডিভিডি সিলেক্ট করে এন্টার বাটনে ক্লিক করুন ।
 

02 একটু অপেক্ষা করুন । ভাষা নির্বাচন করে নেক্সট এ ক্লিক করুন।

03 অপেক্ষা করুন এবং ইনস্টল নাও এই বাটনে ক্লিক করুন।


04 অপেক্ষা করুন এবং আই ডোন্ট হ্যাভ এ প্রডাক্ট কি এখানে ক্লিক করুন।

05 অপেক্ষা করুন এবং অপারেটিং সিস্টেম টাইপ সিলেক্ট করুন।


06 এবার লাইসেন্স ট্রানস এন্ড কন্ডিশন এগ্রি করুন।

07 এখানে কাস্টম ইনস্টল অ্যাডভান্স অপশনে ক্লিক করুন।

08 দয়া করে এখানে সতর্কতার সাথে পদক্ষেপ নিন। 

পুরাতন কম্পিউটারে যে ড্রাইভে উইন্ডোজ করা ছিল । শুধুমাত্র ওই ড্রাইভ টি , সিলেট করবেন। তারপর ডিলেট অথবা ফরমেট করবেন । পুরাতন কম্পিউটারে উইন্ডোজ করা ছিল, ওই ড্রাইভ টি ,ডিলিট অথবা ফরমেট করবেন।  তারপর যে ড্রাইভ টিতে, উইন্ডোজ করতে চান। ড্রাইভ সিলেক্ট করে, নেক্সট এ ক্লিক করুন। সতর্কীকরণ এখানে ভুলক্রমে যদি কোন ড্রাইভ ডিলিট হয়ে যায় তাহলে আপনার ড্রাইভ এবং ডাটা লস করবেন ফাইল খুঁজে পাবেন না । কেয়ারফুল এবং অবশ্যই, আপনি জেনে নিবেন। পুরাতন কম্পিউটারের কোন ড্রাইভ টিতে উইন্ডোজ সেটআপ করা ছিল।শুধুমাত্র ঐ ড্রাইভ টি ডিলিট অথবা ফরমেট করবেন।


এখানে বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করুন । কম্পিউটার স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেস্টার্ট নিবে এবং প্রসেসিং কমপ্লিট হবে।
 


09 কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেম ভাষা সিলেক্ট করুন। ইয়েস বাটনে ক্লিক করুন।

কিবোর্ড এর ভাষা সিলেক্ট করুন। আপনি কি ভাষায় কম্পিউটারে টাইপ করবেন। এবং ইয়েস বাটনে ক্লিক করুন।

সেকেন্ডারি কিবোর্ড ভাষা সিলেক্ট করুন অথবা স্কিপ করুন ।

 


10 এখানে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

আপনার কম্পিউটারে যদি ইন্টারনেট সংযোগ থাকে। তাহলে মাইক্রোসফট একাউন্ট দিয়ে, লগইন করে নিবেন। যদি মাইক্রোসফট একাউন্ট না থাকে। নতুন একটি একাউন্ট তৈরী করে নেবেন। যদি ইন্টারনেট সংযোগ না থাকে তাহলে অফলাইন অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিবেন । অনুরোধ থাকবে অবশ্যই  ইন্টারনেট সংযোগ টি রাখবেন।
এখানে পারসনাল ইউজ সিলেক্ট করুন।

11 মাইক্রোসফট একাউন্ট থাকলে লগইন করুন । না থাকলে নতুন অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিন ।

এখানে ইমেইল কিংবা ফোন নাম্বার ব্যবহার করে নতুন অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারেন।

বাংলাদেশ সিলেক্ট করুন এবং আপনার ফোন নাম্বারটা করুন।

নতুন একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করুন।

আপনার কান্ট্রি সিলেক্ট করুন এবং জন্মতারিখ টাইপ করুন।

আপনার মোবাইল চেক করুন মাইক্রোসফট থেকে ভেরিফিকেশন কোড পাঠানো হয়েছে কোট এখানে টাইপ করে ভেরিফাই করে নিন।

একটা পিন তৈরি করুন। কম্পিউটার ওপেন করার সময়, অবশ্যই পিন সাবমিট করে, কম্পিউটার ওপেন করতে হবে।

পছন্দ করে একটি পিন সেট আপ করুন। পিন টাইপ করা হলে, ওকে বাটনে ক্লিক করুন।
কাস্টমাইজ করার প্রয়োজন হলে কাস্টমাইজ করুন। অথবা একসেপ্ট বাটনে ক্লিক করুন।
এখানেই স্কিপ বাটনে ক্লিক করুন।
এখানে নো থ্যাংকস বাটনে ক্লিক করুন।

কম্পিউটারের ফাইল ব্যাকআপ কিভাবে রাখবেন।

অনেক সময় আমরা ডেক্সটপে ফাইল রেখে দেই। ভুলক্রমে কম্পিউটার সেটআপ করি । বিদ্যুৎ চলে গেলে, কম্পিউটারের উইন্ডোজ ওপেন হয় না ।নানান সমস্যার কারণে, কম্পিউটারে ডেক্সটপে থাকা ফাইলগুলো হারিয়ে যেতে পারে । লোকাল কম্পিউটারে ডেক্সটপে থাকা ফাইলগুলো ব্যাকআপ রাখার জন্য । মাইক্রোসফট অন ড্রাইভ ব্যবহার করতে পারেন । স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডেক্সটপে থাকা ফাইলগুলো, মাইক্রোসফট অন ড্রাইভ, ব্যাকআপ থাকবে । যখন একাউন্ট দিয়ে, নতুন কম্পিউটার সেটআপ করে। লগইন করবেন, স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডেস্কটপের ফাইলগুলো ডেক্সটপে আবার চলে আসবে ।ডাটাগুলো লস হবে না । সেভ না রাখতে চাইলে। অনলি সেভ ফাইল টু দিস পিসি । এখানে ক্লিক করলে। ওয়ান ড্রাইভ এ আপলোড হবে না শুধু কম্পিউটারে সেভ থাকবে।

 

মাইক্রোসফট অফিস কিভাবে সেটআপ করবেন।

microsoft-office চাইলে সেটআপ করে নিতে পারেন। এখান থেকে 30 দিনের জন্য ফ্রি ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। যদি এখান থেকে ডাউনলোড  বা ইনস্টল করতে না চান । তাহলে Decline করে দিতে পারেন । আমি ব্যবহার করব না । যদি প্রোডাক্ট কি দিয়ে ব্যবহার করতে চান তাহলে প্রোডাক্ট কি সিলেক্ট করে দিলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে একটিভ হয়ে যাবে ব্যবহার করতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।
যদি আপনার কোন গেম পছন্দ থাকে তাহলে এক্টিভ করে নিবেন না হলে নো থ্যাংকস এখানে ক্লিক করুন।
এখানে নট নাও এই বাটনে ক্লিক করুন।
হয়ে গেল আমাদের কম্পিউটার উইন্ডোজ সেটআপ করা স্বয়ংক্রিয়ভাবে কম্পিউটার ওপেন হয়ে যাবে
হয়ে গেল কম্পিউটারে উইন্ডোজ সেটআপ করা। আশা করি, আপনি খুব সহজেই, আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজ সেটাপ করতে পারবেন। যদি বুঝতে সমস্যা হয় । আবার একটু ঘুরে দেখবেন, অথবা নিচে থাকা লিঙ্ক থেকে। ভিডিও দেখে নিবেন,যাতে সহজেই উইন্ডোজ, কিভাবে সেটআপ করতে হয়, শিখতে পারেন, জানতে পারেন বুঝতে পারেন।

কিভাবে ডেস্কটপের আইকন শর্টকাট সেটাপ করতে হয়।

ডেক্সটপে থাকা শর্টকাটে ক্লিক করে, খুব সহজেই কম্পিউটার ড্রাইভ খুঁজে নিতে পারি । এমনকি কম্পিউটারের উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের, সেটিং বিভিন্ন সেটিং সহজে খুঁজে নিতে পারি। কিভাবে আমরা ডেক্সটপের এই শর্টকাটগুলো ডেক্সটপে নিয়ে আসব। প্রথমে ডেক্সটপের ফাঁকা জায়গায় ক্লিক করে পার্সোনালাইজড ক্লিক করুন।
পাশে থাকা সাইট মেনু থেকে থিমস অপশনে ক্লিক করুন।
তারপরে স্ক্রল ডাউন করে নিচের দিকে যাবেন। লেখা দেখবেন দেক্সটপ আইকন সেটিং।
উপরে ডেস্কটপ আইকনে টিক চিহ্নতে ক্লিক করুন ।ওকে অথবা এপ্লাই তে ক্লিক করুন।
হয়ে গেল, উইন্ডোজ সেটআপ করা । উইন্ডোজ সেটআপ করার প্রসেসিং একদম সহজ। যদি আপনার জানা থাকে। যদি বুঝতে সমস্যা হয়। তাহলে কমেন্ট বক্সে জানিয়ে দিবেন। যদি পোস্টটি ভাল লাগে। তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন । আমাদের চ্যানেলটিকে সাবস্ক্রাইব করবেন । আমাদের ফেসবুক প্রোফাইলে লাইক দিয়ে আমাদের পাশে থাকবেন । কোন মতামত থাকলে, ম্যাসেঞ্জারে জানিয়ে দিবেন । ধন্যবাদ সবাইকে ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন ।আসসালামুয়ালিকুম ।

Post a Comment

মূল্যবান মতামতের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Previous Post Next Post