এশিয়া কাপ ২০২২ বাংলাদেশের স্কোয়াড

সম্প্রতি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এশিয়া কাপ ২০২২ বাংলাদেশের স্কোয়াড প্রকাশা করেছে। ইন্ডিয়া পাকিস্থান ইতিমধ্যে তাদের চূড়ান্ত স্কোয়াড প্রকাশা করেছেন। স্কোয়াড ঘোষণার অতিরিক্ত ৩ দিন সময় পায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। 
এশিয়া কাপ ২০২২ বাংলাদেশের স্কোয়াড


এ মাসের ২৭ তারিখ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। তার ঠিক একমাস পরেই শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে এবারের এশিয়া কাপে হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। এবারের এশিয়া কাপ কে  সামনে রেখে ইতিমধ্যে পাকিস্তান দল ঘোষণা করলেও বাংলাদেশ আইসিসির কাছ থেকে অতিরিক্ত দুই দিন সময় নিয়েছিল। অবশেষে বাংলাদেশে এশিয়া কাপের জন্য দল ঘোষণা করলেন।
 

 
এশিয়া কাপের দল ঘোষণা সবচেয়ে বড় চমক দীর্ঘদিন পর দলে ফিরেছেন সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান। দীর্ঘদিন একটানা ফর্ম এর বাইরে থাকার কারণে সৌম্য সরকার ছিটকে গিয়ে ছিলেন দলের বাইরে আর সাব্বির রহমান তো দলের সাথে নেই প্রায় তিন বছর হয়ে গেল। এবারের এশিয়া কাপ যেহেতু টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে হচ্ছে, আর তার পরপরেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তাই এসব বিষয় মাথায় রেখে দলে ফেরানো হয়েছে হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান।
 
 
 তবে সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানের দলে ফেরার ব্যাপারে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে জিম্বাবুয়ে সিরিজে দলে থাকা ক্রিকেটারদের বাজে পারফরম্যান্স ও কিছু প্লেয়ারের ইনজুরি। 
মাত্র শেষ হওয়া জিম্বাবুয়ে সিরিজে ৩ টি-টোয়েন্টি  ও ৩ ওডিআই ম্যাচের মধ্যে ২ টি করে মোট ৪টি ম্যাচে হেরেছে বাংলাদেশ। ক্রিকেটারদের এমন হতাশাজনক পারফরম্যান্সে বিসিবির নজর পড়েছে সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানের দিকে।
 
নাজমুল হোসেন শান্ত, ইয়াসির রাব্বিদের ব্যর্থতা চোখে পড়েছে বিজিবি। নাজমুল হোসেন শান্ত তো রীতিমত ব্যর্থতার ষোলোকলা পূর্ণ করেছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে শক্তিশালী ওডিআই ফরম্যাটে পরপর ১৩ ম্যাচ সুযোগ পেয়েও করতে পারেনি একটিও ফিফটি। আর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে  অবস্থা তো আরো খারাপ। স্ট্রাইকাররেট একমাত্র ১০৪। 
সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানের দলে ফেরার ব্যাপারে এগুলোর সাথে আরো ভূমিকা রেখেছে দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারদের ইনজুরি। বর্তমান বাংলাদেশের সবচেয়ে ইনফর্ম ব্যাটসম্যান লিটন দাস পড়েছেন হামিস্ট্রং ইনজুরিতে।কমপক্ষে ৩ সপ্তাহ থাকবেন মাঠের বাইরে।সুতরাং এশিয়া কাপের তার দলের থাকাটা ছিল আগে থেকেই অনিশ্চিত। তার সাথে আবার যোগ হয়েছে সদ্য টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন পাওয়া নুরুল হাসান  সোহান জিম্বাবুয়ে সিরিজে উইকেটে পেছন থেকে আঙ্গুলে চোট পেয়েছেন। তাই এই দুই ক্রিকেটারের আগে থেকেও দলে থাকা ছিল অনিশ্চিত। 

এশিয়া কাপ ২০২২ বাংলাদেশের স্কোয়াড  এশিয়া কাপ বাংলাদেশ দল ২০২২।

এদিকে হঠাৎ দলে ফেরা নিয়ে খুশি হয়ে সাংবাদিকদের সামনে সাব্বির রহমান বলেন নিজের উপর আত্মবিশ্বাস ছিল, আর পরিশ্রমটা করেই গেছি। বিসিবি যেহেতু আবার আমাকে বিবেচনা করেছে আমি চেষ্টা করব আমার সর্বোচ্চ দিয়ে দলের হয়ে ভাল করতে। সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান এই মুহূর্তে বাংলাদেশ এ দলের হয়ে তিন ম্যাচের ওডিআই সিরিজ খেলতে রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজে।

এশিয়া কাপ ২০২২ বাংলাদেশ দল

    1.  সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক)
    2. এনামুল হক বিজয়
    3. মুশফিকুর রহিম
    4. আফিফ হোসেন
    5. মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত
    6. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ
    7. শেখ মাহেদী
    8. মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন
    9. হাসান মাহমুদ
    10. মুস্তাফিজুর রহমান
    11. সাব্বির রহমান
    12. মেহেদী হাসান মিরাজ
    13. এবাদত হোসেন
    14. পারভেজ ইমন
    15. নুরুল হাসান সোহান 
    16.  তাসকিন আহমেদ
  1.  
  2. প্রশ্নঃ বাংলাদেশ কত সালে এশিয়া কাপ পায়?
  1.  
  2. উত্তরঃ এশিয়া কাপ ইতিহাসে এবারের আসরটির হবে ১৫ তম। অর্থাৎ এর আগে এশিয়া কাপের আসার হয়েছে ১৪ টি। অনুষ্ঠিত হওয়া ১৪টি আসরের মধ্যে বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করেছে মোট ১২ বার। ১৯৮৮ সালে বাংলাদেশক সর্বপ্রথম এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ করে আয়োজক দেশ হিসেবে। এশিয়া কাপে বাংলাদেশ মোট ১২বার অংশগ্রহণ করেও চ্যাম্পিয়ন হতে পারে নি একবারও সর্বোচ্চ সাফল্য হিসেবে বাংলাদেশ রানার্সআপ হয়েছে ৩ বার। বাংলাদেশ ২০১২ সালে সর্বপ্রথম এশিয়াকাপের ফাইনালে স্থান করে নেয়। সেবার পাকিস্তানের সাথে শেষ ওভারের নাটকীয়তায় হেরে রানার্সআপ হয় বাংলাদেশ। এরপরে ২০১৬ ও ২০১৮ সালে এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠলো একবারও কাপ নিতে পারেনি বাংলাদেশ। এশিয়া কাপের সর্বশেষ আসর (২০১৮) মাত্র এক রানে ভারতের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন হতে ব্যর্থ হয় বাংলাদেশ। এশিয়া কাপের ১৪টি আসরেই অংশগ্রহণকারী দল ভারত শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। এর মধ্যে ভারত সর্বোচ্চ ৮বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। শ্রীলংকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ৪ বার এবং পাকিস্তান চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ২বার।
  3.  
প্রশ্নঃ সর্বশেষ এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন কোন দেশ?
উত্তরঃ চ্যাম্পিয়ন ভারত এবং এশিয়ার বর্তমান রানার্সআপ বাংলাদেশ।
 
প্রশ্নঃ সর্বশেষ এশিয়া কাপ ক্রিকেট কোথায় অনুষ্ঠিত হবে?
উত্তরঃ এশিয়ান ক্রিকেট কাউনসিল থেকে জানা যায় ২০২২ সালের এশিয়া কাপ সংযুক্ত আরব আমিতে অনুষ্ঠিত হবে।
 
 
 

Post a Comment

মূল্যবান মতামতের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

Previous Post Next Post